Breaking News
Home / News / চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জন্য টাইগারদের ভাগ্য নির্ধারণ আজ

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জন্য টাইগারদের ভাগ্য নির্ধারণ আজ

বিরহের রাগিণী বেজে উঠেছে দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে। বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা আজ একে অন্যকে ছাড়িয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে মাঠে নামবে। এই ম্যাচ নিয়ে কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই দিল্লির। ব্যস্ত শহরে ম্যাড়ম্যাড়ে ম্যাচ কেন উত্তেজনা ছড়াবে। সব হারা বাংলাদেশের কাছে তবু আজকের ম্যাচটি গুরুত্বপর্ণ! টানা ছয় হারের পর এই ম্যাচ জিততে পারলে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার দরজা খোলা থাকবে টাইগারদের সামনে।

কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে দলের অকল্পনীয় ব্যর্থতায় আজকের ম্যাচটিকেই শেষ আশা হিসাবে দেখছেন। অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে দুটি স্ট্যান্ড রয়েছে মহিন্দর অমরনাথ ও বিষেন সিং বেদীর নামে। প্রেস বক্সের বিপরীতে গৌতম গম্ভীর স্ট্যান্ড। স্বাগতিক দলের ড্রেসিংরুমের উপরে কোহলি স্ট্যান্ড। নিজেদের কাজগুলো সেরে রাখছেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা।

বায়ুদূষণের জন্য মাস্ক পরা, বিকাল থেকে যখন ধোঁয়া বেশি থাকবে তখন অনুশীলন। মাঠের ফল যাই হোক, দলের খচখচানি থাকবেই। শ্রীলংকার বিপক্ষে কুরুক্ষেত্রে নামার আগে রোববার বাংলাদেশের আট ক্রিকেটার অনুশীলন করেন।

তার আগেই প্রধান কোচ হাথুরুসিংহে বলেন, ‘বিশ্বকাপে আমাদের আশা আগেই শেষ হয়ে গেছে। আগামীকালের (আজ) ম্যাচ আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। জিতলে আমরা চ্যামিস্পয়ন্স ট্রফির লড়াইয়ে টিকে থাকব। সুযোগ হাতছাড়া করতে চাই না।’

প্রথম ম্যাচ জেতার পর টানা ছয় হার। এদিকে মুশফিকুর রহিম ডান-হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলে চোট পাওয়ার পরও ব্যাটিং অনুশীলন করেছেন। তার আঙুলে বরফ দিয়ে রাখা হয়েছিল অনেকক্ষণ। আজ তার খেলার সম্ভাবনাই বেশি। ১৫ জনের দলে বিশ্বকাপের সাত ম্যাচে নামা হয়নি শুধু ডান-হাতি পেসার তানজিদ হাসান সাকিবের। তার খেলার সম্ভাবনা রয়েছে আজ।

মুম্বাই থেকে বিধ্বস্ত হয়ে আসা শ্রীলংকা দিল্লিতে কাল প্রথম অনুশীলন করেছে। তবুও কাগজে-কলমে তাদের বিশ্বকাপ এখনো টিকে রয়েছে। ভারতের বিপক্ষে ৫৫ রানে অলআউট হওয়া শ্রীলংকার দুটি জয়, কয়েকটি ম্যাচে তারা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করেছে। সবশেষ এশিয়া কাপেও লংকানদের কাছে দুই ম্যাচেই হেরেছে বাংলাদেশ। ইনজুরির ধাক্কায় শ্রীলংকার সেমির আশা নিভু নিভু। তারাও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার চ্যালেঞ্জ নিয়ে মাঠে নামবে।

About RJ Saimur

Check Also

বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী সুমা পারভীন

নিজস্ব প্রতিবেদক: জন্মের সময় কোন শিক্ষাই অর্জন করে পৃথিবীতে কেউ আসে না, কেউ ঠকে শিখে …

Leave a Reply